সংবাদ শিরোনাম
Home / শেয়ারবাজার / পুঁজিবাজারে বিনিয়োগে নিরুৎসাহিত করণে হাউজে হাউজে সাপলুডুর ব্যানার, বিশেষজ্ঞদের ক্ষোভ

পুঁজিবাজারে বিনিয়োগে নিরুৎসাহিত করণে হাউজে হাউজে সাপলুডুর ব্যানার, বিশেষজ্ঞদের ক্ষোভ

সরকার যেখানে দেশের পুঁজিবাজারকে ভালো করতে দিনরাত কাজ করে যাচ্ছন একের পর এক পরিকল্পনা করে পুঁজিবাজারকে ঠিক করতে চাচ্ছেন সেখানে প্রত্যেকটা ট্রেডিং হাউজের সামনেই একটি সাপলুডুর ব্যানার টানিয়ে রাখছেন কর্তৃপক্ষ! বিষয়টি নিয়ে অনেকের মনেই ক্ষোভ রয়েছে।

আবার কেউ কেউ নতুন করে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করতে আসলে তারা এই ব্যানারটি দেখেই আঁতকে উঠেন। ফলে তারা বিনিয়োগ করতে নিরুৎসাহিত হয়ে পড়েন। কারন এই ব্যানারটিতে যেভাবে পুঁজি হারানোর ব্যাখ্যা দেওয়া হয়েছে যা সত্যি অত্যান্ত ভয়ংকর।

অনেকেই মনে করেন এভাবে প্রত্যেক হাউজের সামনে এমন করে সাপলুডুর ব্যানার এবং এর ব্যাখ্যা বিনিয়োগকারীদের নিরুৎসাহিত করে ফেলে। তারা তাদের কষ্টার্জিত টাকা সাপের মুখে তুলে দিতে চাননা বলেও জানান অনেকেই।

ফয়সাল মিশেল নামের এক বিনিয়োগকারী সময় এক্সপ্রেস নিউজকে জানান, “প্রত্যেকটা হাউজের সামনে এভাবে সাপলুডুর ব্যানার লাগিয়ে বিনিয়োগকারীদেরকে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগে নিরুৎসাহিত করনের কোনই মানে হয়ন। কেউই তার কষ্টের উপার্জিত টাকা সাপের মুখে দিতে চাইবেনা। কর্তৃপক্ষের উচিত এই ব্যনারটি যত দ্রুত সম্ভব নিষিদ্ধ করা।”

এন এল আই সিকিউরিটিজ এর এক ট্রেডার জানান, “অনেক সময় নতুন কেউ একাউন্ট খুলতে আসলে এই ব্যানার দেখেই তারা চলে যান ভয়ে। এই বিষয়ে একদিন এক বিনিয়োগকারী আমাদের জানান শেয়ারবাজার একটা ভয়ংকর জায়গা বলে আপনারাই প্রমাণ করতে চাইছেন এই সাপলুডুর ব্যানার লাগিয়ে এর বিশ্লেষণের মাধ্যমে। আমি কেনো আমার কষ্টের অর্জিত অর্থ এই সাপের মুখে তুলে দিবো!”

এই বিষয়ে শেয়ার বিশেষজ্ঞ লায়ন লূৎফুল গণি টিটু সময় এক্সপ্রেস নিউজকে জানান, “শেয়ারবাজার একটি বিনিয়োগের জায়গা, এটা কোন সাপলুডু খেলার যায়গা নয়। প্রত্যেকটা ব্যবসায় লাভ ক্ষতি আছে এখানেও আছে। তাই বলে এটাকে সাপলুডুর সাথে তুলনা করার কোন অর্থই হয়না। নতুন নতুন বিনিয়োগকারী যত আসবে মার্কেট ততোই ভালো হবে। এই সাপলুডুর ব্যানারের ফলে নতুন বিনিয়োগকারীরা বিনিয়োগ করতে ভয় পায়। তারা ভাবে মার্কেটে টাকা ঢুকালে হয়তো আর বের করতে পারবেনা। তার মাঝে এই পোষ্টার দেখেই প্রথমেই ভয় ডুকে যায়। আমি যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে আহবান জানাবো অতিদ্রুত এই ব্যানারকে নিষিদ্ধ করা হোক।”

উক্ত বিষয়ে বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের চেয়ারম্যানের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও যোগাযোগ সম্ভব হয়নি।

সময় এক্সপ্রেস নিউজ/নাঈম সজল

About নাঈম সজল

এ সম্পর্কিত আরো খবর

পুঁজিবাজার বন্ধ ২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল

দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী পুঁজিবাজারও বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামী …

উত্থান-পতনে অস্থির পুঁজিবাজার

ব্যাপক অস্থিরতা দেখা দিয়েছে দেশের পুঁজিবাজারে। বড় ধসের পর বড় উত্থান, আবার বড় পতন এমনভাবেই …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *